পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

এক অবস্থানে সেবা

পবিস এর এক অবস্থানে সেবা (ওয়ান পয়েন্ট সার্ভিস) এ নতৃন বিদ্যুৎ সংযোগ/বিল/মিটার সংক্রান্ত অভিযোগ,বিল পরিশোধের ব্যবস্থা সহ সকল ধরনের অভিযোগ জানানো যাবে এবং এতদ সংক্রান্ত বিষয়ে তথ্য পাওয়া যাবে।

নতুন সংযোগ গ্রহণ

বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে নতুন সংযোগের আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে। এছাড়া ''এক অবস্থানে সেবা কেন্দ্র'' থেকে নতুন সংযোগের আবেদনপত্র পাওয়া যাবে।

আবেদন পত্রটি যথাযথভাবে পূরণ করে আবেদন পত্রের সাথে প্রয়োজনীয় সংযোগ স্থলের মালিকানা সংক্রান্ত জমির কাগজাদি, নাগরিক সনদ, জম্ম নিবন্ধন সনদ, ২ (দুই) কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি সহ নির্ধারিত আবেদন ফি জমা প্রদান করলে জমা রশিদ প্রদান করা হয়। পরবর্তী প্রয়োজনীয় সমীক্ষা এবং ষ্টেকিং কার্য সম্পন্ন শেষে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সংযোগ অনুমোদনের পর প্রয়োজনীয় লাইন নির্মাণ মালামাল প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে সংযোগ ছাড়পত্র, ডিমান্ড নোট ও প্রাক্কলন ইস্যু করা হয়। প্রস্তাবিত সংযোগ স্থলে সমিতির প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ইলেকট্রিশিয়ান দ্বারা প্রয়োজনীয় ওয়্যারিং কার্যাদি সম্পন্নের পর সমিতির সদর দপ্তর /জোনাল অফিস/বিলিং এরিয়া অফিস সমূহে ডিমান্ড নোটের উল্লিখিত অর্থ জমা গ্রহণ পূর্বক সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়ে থাকে। যদি সংযোগ প্রদান সম্ভবপর না হয় তবে তার কারণ জানিয়ে আবেদনকারীকে পত্র দেয়া হয়।

বিল সংক্রান্ত অভিযোগ

বিল সংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ; যেমন, চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি, বকেয়া বিল, অতিরিক্ত বিল, ইত্যাদির জন্য ‘‘এক অবস্থান সেবা কেন্দ্র’’ -এ যোগাযোগ করলে সমাধান সম্ভব হলে তা তাৎক্ষনিক নিষ্পত্তি করা হবে। অন্যথায় জানিয়ে দেয়া হবে।

বিল পরিশোধ

নির্ধারিত ব্যাংক / সমিতির সদর দপ্তর/ জোনাল অফিস/বিলিং এরিয়া অফিসে গ্রাহক বিল পরিশোধ করতে পারবেন। ইলেকট্রনিক বিল পে -এর আওতাভুক্ত এলাকায় চড়রহঃ ড়ভ ঝধষব(চঙঝ) এর মাধ্যমে বিল পরিশোধ করা যাবে।

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগ

বিদ্যুৎ সরবরাহ ইউনিটের নির্দিষ্ট ‘‘অভিযোগ কেন্দ্র’’-এ আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগ জানানো হলে আপনাকে অভিযোগ নম্বর ও নিষ্পত্তির সম্ভাব্য সময় জানিয়ে দেয়া হবে। অভিযোগ নম্বরের ক্রমানুসারে আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূরীভূত করার লক্ষে ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে যদি নির্ধারিত সময়ে বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূরীভূত করা সম্ভব না হয়, তার কারণ গ্রাহককে অবহিত করা হবে।

অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগ

ধর্মীয় অনুষ্ঠান,মেলা,আনন্দ মেলা এবং রাস্তা, ব্রীজের নির্মাণ কাজের জন্য অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা যাবে। কিন্তু চলমান নির্মাণ কাজ সম্পন্ন বাড়ী, শিল্প অথবা কমপ্লেক্সে অস্থায়ী সংযোগ প্রদান করা যাবে না। এ সংযোগ শুধুই অস্থায়ী ভিত্তিতে যাহা কখনই স্থায়ী সঙযোগ পরিবর্তন করা যাবে না। এ ধরণের সংযোগের জন্য নিম্নলিখিত শর্ত ও পদ্ধিত অনুসরণ করেত হবেঃ

(ক) এ সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় সকল মালামালের বুক ভ্যালুর শতকরা ১১০ ভাগ মূল্যে গ্রাহকেক প্রদান করেত হবে। অবশ্য ট্রান্সফরমার, লাইটনিং এ্যারেষ্টার, ফিউজ কাটআউট, মিটার এবঙ মিটার সকেট ব্যতিত কার্য সম্পন্নের পর উক্ত মালামাল ব্যবহার উপযুক্ত হলে ১০০% মালামালের মূল্য ফেরৎ প্রদান করা হবে।

(খ) এ সংযোগ সুবিধা সৃষ্টির জন্য প্রয়োজনীয় শ্রমিকের মজুরী এবং বিচ্ছিন্ন ও সংযোগ ফি প্রদান করতে হবে।

(গ) সার্ভিস চুক্তি অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে ব্যবহৃত বিদ্যুতের মূল্য জিপি রেট সিডিউল অনুযায়ী ধার্য করা হবে।

যদি অস্থায়ী সংযোগ ছয় মাসের বেশী না হয় তবে আবেদনকারী গ্রাহককে (ক),(খ),(গ) ( প্রাক্কলিত বিদ্যুৎ বিল) তে উল্লেখিত খরচ অগ্রীম প্রদান করতে হবে।

উপরোক্ত বর্ণনানুযায়ী অর্থ ছাড়াও নীতি নির্দেশিকা মোতাবেক অন্যান্য খরচ যেমনঃ- সমীক্ষা ফি, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে লাইন নির্মাণ/ লাইন রুপান্তর/ পরিবর্তন ব্যয় গ্রাহককে

লোড পরিবর্তন

লোড বৃদ্ধির জন্য সমীক্ষা ফি দিয়ে আবেদন করতে হবে।

লোড বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বর্ধিত লোডের জন্য শ্রেণী ভিত্তিক প্রযোজ্য জামানত প্রদান করেত হবে।

অতিরিক্ত লোডের জন্য সার্ভিস তার/ ট্রান্সফরমার বদলানোর প্রয়োজন হলে উক্ত ব্যয় প্রত্যেককে বহন করতে হবে।

প্রাক্কলণ ও জামানতের অর্থ জমা দানের ৭ (সাত) দিনের মধ্যে লোড বৃদ্ধি কার্যকর করা হবে। যদি লোড বৃদ্ধি করা সম্ভবপর না হয় তবে তার কারণ জানিয়ে গ্রাহককে একটি পত্র দেয়া হবে।

গ্রাহকের নাম পরিবর্তন ফি

গ্রাহক ক্রয় সূত্রে/ ওয়ারিশসূত্রে জায়গা বা প্রতিষ্ঠানের মালিক হলে সকল দলিলের সত্যায়িত ফটোকিপ ও পরিশোধিত বিদ্যুৎ বিলের কপি প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ট্রেড লাইসেন্স, আর্টিক্যাল অব মেমোরেন্ডামসহ নির্ধারিত ফি দিয়ে আবেদন করতে হবে। সরেজমিনে তদন্ত করে নাম পরিবর্তনের জন্য নির্ধারিত হারে জামানত প্রদান করা সাপেক্ষে সাত দিনের মধ্যে নাম পরিবর্তন করা হবে।

 

 

 

 

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter